ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ॥ পবিত্র মাহে রবিউল আউয়াল আগমন উপলক্ষ্যে আজ বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা আখাউড়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে ছাত্রসেনা আখাউড়া উপজেলার সভাপতি পীরজাদা সৈয়দ বাকী বিল্লাহ্ নূরীর সভাপতিত্বে এক স্বাগত র‌্যালী ও সংক্ষিপ্ত পথসভা, মিলাদ এবং দোয়ার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালীটি আখাউড়া রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে বের হয়ে আখাউড়া শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আখাউড়া রেলওয়ে ষ্টেশনে এসে শেষ হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের কার্যনির্বাহী সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সভাপতি ছাত্রনেতা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিল যুবসেনা আখাউড়া উপজেলার সভাপতি যুবনেতা পীরজাদা মাওলানা বুরহান উদ্দিন চিশতী, ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের কার্যনির্বাহী সদস্য শেখ মোহাম্মদ বুরহান উদ্দিন রেজা, মাওলানা শামসুজ্জামন সুন্নী আল-কাদেরী, ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ সা’য়াদ উদ্দিন, ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ শাখার সভাপতি ছাত্রনেতা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, ছাত্রসেনা কসবা উপজেলার সভাপতি ছাত্রনেতা হাফেজ শফিকুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রসেনা আখাউড়া উপজেলার অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ ইফরাদুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মীর মুহাম্মদ জামাল উদ্দীন, সহ-প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ আকরাম মুন্সি, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মুহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম, সদস্য সৈয়দ নিয়ামত উল্লাহ, সদস্য মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন (হৃদয়), ২ নং ধরখার ইউপি শাখার সভাপতি শামসুল আলম মোল্লা, সহ সভাপতি মুহাম্মদ জুবায়েদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দীন শাহিন ভূঁইয়া, সহ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাকিল আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম (রায়হান), অর্থ সম্পাদক মুহাম্মাদ রবিউল সর্দার, দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ ইউসুফ মিয়া, মোগড়া ইউ,পি শাখার সভাপতি মুহাম্মদ ওসমান গনী ফারুকী, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আকাশ আহমেদ, সহ সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নজিবুল বশর, অর্থ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহাম্মদ আল সহ-দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ পারভেজ মিয়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ আরাফাত মিয়া, ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক সৈয়দ সাব্বির হোসেন প্রমুখ।
উক্ত স্বাগত র‌্যালীকে সফল ও স্বার্থক করতে উপস্থিত ছিল ছাত্রসেনা আখাউড়া উপজেলার অধীনস্থ সকল ইউনিয়নের সম্পাদক ও সদস্য সহ সর্বস্তরের সুন্নী জনতা।

আখাউড়ায় মাহে রবিউল আউয়ালকে স্বাগত জানিয়ে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

বিএনপি গতবার যে ভুল করেছে সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি না ঘটিয়ে নির্বাচনে আসুক। এটা আমরা চাই। আওয়ামী লীগ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন চায়। ফাঁকা মাঠে গোল দেওয়ার কোনো মানসিকতা আমাদের নেই।

সোমবার বিকাল ৩টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর মহীপালে নির্মাণাধীন ৬ লেইন ফ্লাইওভারের নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

‘নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে খালেদা জিয়াকে মামলা দিয়ে হয়রানি’ বিএনপির এমন অভিযোগের ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে, সেই মামলা বিচার কার্যক্রমে এগিয়ে চলছে। সেই মামলা শেষ পর্যন্ত একটা রায় হবে। সেই রায়ে বেগম জিয়া দন্ডিত হবেন না খালাস হবেন তা এই মুহুর্তে বলা যাচ্ছে না।

সৈয়দপুরে বিএনপি মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে আলাপের ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, তার সঙ্গে শুধু কুশল বিনিময় হয়েছে। সংলাপ কিংবা অন্য কোনো বিষয়ে আলোচনা হয়নি।

নির্মাণাধীন ফেনীর মহীপালের ৬ লেইন ফ্লাইওভারের ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, মোট ১৮১ কোটি টাকা ব্যয়ে ফ্লাইওভারটির নির্মাণ কাজ হচ্ছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়েকর ফেনীর মহিপালে দেশের প্রথম ছয় লেন বিশিষ্ট বৃহৎ ফ্লাইওভরাটি কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এটি উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

এসময় প্রকল্পের পরিচালক ৩৪ ইঞ্জিনিয়র কনস্টাকশন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম রেজাউল মজিদ, লে. কর্নেল মুশফিকুল আলম, লে. কর্নেল শাহরিয়ার, ফেনীর পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গির আলম সরকার, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ করিম, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন চায় :: ওবায়দুল কাদের

হিজাব ছাড়তে না চাওয়ায় কুয়েতের একটি নার্সারি স্কুলের শিক্ষক হিসাবে বিবেচিত হননি ব্রিটিশ নারী ফৌজিয়া খাতুন। ইংরেজিমাধ্যম স্কুলটি চাকরি করতে হলে তাকে অবশ্যই হিজাব অপসারণ করতে হবে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষ তাকে জানিয়ে দেয়।

কুয়েতের মতো পুরোপুরি একটি মুসলিম দেশের একটি স্কুলের এমন আচরণে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ এই নারী।

ফৌজিয়া খাতুনের (২৩) আশা ছিল উপসাগরীয় মুসলিম এই দেশটিতে শিক্ষক হিসেবে কাজ করার। এজন্য তিনি দেশটির একটি নার্সারি স্কুলের ইংরেজী শিক্ষক পদে আবেদন করেন। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষের এই কথায় তিনি অত্যন্ত হতাশা ব্যক্ত করেছেন তিনি।

স্কুলের এইচআর বিভাগ থেকে তাকে একটি ইমেল পাঠানো হয়েছে। এই ইমেলে বলা হয়, ‘এটি একটি ইংরেজি স্কুল। এ কারণে বাবা-মায়েরা তাদের শিশুদের জন্য হিজাব পরিহিত শিক্ষিকা চান না।’

এতে আরো বলা হয়, স্কুলটিতে চাকরি করতে চাইলে আপনাকে স্কুলে প্রাঙ্গনে মাথা হিজাব পরিধান করতে দেয়া হবে না এবং নিয়ে কোনো ধরণের নেগোশিয়েশনের অনুমোদন দেয়া হবে না।

‘ইংলিশ প্লেগ্রুপ এডুকেশনাল’ প্রতিষ্ঠানটি শুরু থেকেই দাবি করে আসছে যে, হিজাব পরিহিত স্টাফদের গর্বের সঙ্গে তারা নিয়োগ দিয়ে থাকেন।

স্কুলটির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘ইংলিশ ন্যাশনাল কারিকুলাম অনুযায়ী হাই প্রোফাইল ইংরেজি বিশেষজ্ঞ শিক্ষকদের দ্বারা শিশুদের ইংরেজি শেখানো হয়।’

ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত ফৌজিয়া খাতুনের জন্ম ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ারের ব্র্যাডফোর্ডে। বর্তমানে তিনি একজন সহকারী শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। তিনি বলেন, তাদের পাঠানো ইমেইলটি ছিল পুরোপুরি বৈষম্যমূলক।

তিনি বলেন, ‘ইমেলটি পড়ার পর আমি আমার নিজেকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। হিজাব ছাড়া ঘর থেকে বাইরে বেড়িয়ে আসার জন্য বলাটা আমার কাছে অস্বাভাবিক মনে হয়েছে। এটি আমার ধর্মের প্রতিনিধিত্ব করে না। হিজাব আমার জীবনের একটি অংশ।’

ফৌজিয়া বলেন, ‘আমি একজন স্বাভাবিক ব্রিটিশ মেয়ে এবং আমার হিজাব একই পরিচয়ের অংশ। তাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে ব্রিটিশ বাবা-মা কিংবা ইংরেজী স্কুল হিজাব পরিধানের কারণে আমাকে খুব আক্রমণাত্মক করতে চাইবে না। আমি ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেছি এবং আমি একজন ইংরেজ।’

তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডে বসবাসের সময়ে আমি আমার জীবনে কখনোও ইসলামোফোবিয়ায় সম্মুখীন হয়নি। তাই প্রথমবারের মতো এটি আমার জন্য একটি উদ্ভট অভিজ্ঞতা। এটি আরো বেশি বিস্ময়কর যে দেশটির ৯৯ শতাংশই মুসলিম।’ সূত্র: দ্য এক্সপ্রেস

হিজাব ছাড়তে না চাওয়ায় স্কুলে চাকরি পেলেন না ব্রিটিশ নারী

প্রত্যাশিতভাবেই সোমবার কংগ্রেসের পরবর্তী সভাপতি হিসেবে রাহুল গান্ধীর নাম প্রস্তাব করেছে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি। তা পাশ হয়েও গিয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ডিসেম্বরেই কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে রাহুল আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করবেন।

দলের পরবর্তী সভাপতি ঠিক করতেই সোনিয়া গান্ধী সোমবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক ডেকেছিলেন। গত ১৭ বছর ধরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সোনিয়াই দলের সভাপতি হিসেবে কাজ চালাচ্ছেন।

রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতি

সাড়ে ৮ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অ্যালায়েন্স সিকিউরিটিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান পঙ্কজ রায়কে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার সকালে ঢাকার ধানমন্ডির ১৩ নম্বর রোডে পঙ্কজ রায়ের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে দুদকের একটি দল।

দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ সত্য নিশ্চিত করে জানান, সোমবারই আদালতে হাজির করা হবে।

দুদকের উপ সহকারী পরিচালক সিলভিয়া ফেরদৌস সম্প্রতি পঙ্কজ রায়ের বিরুদ্ধে পল্টন থানায় এই মামলা দায়ের করেন। সেখানে সাড়ে আট কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে অ্যালায়েন্স সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

ফেসবুকে আমরা...